কামরাঙ্গীরচরে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় মূল আসামি গ্রেপ্তার

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে চাঞ্চল্যকর ১৩ বছরের কিশোরীকে গণধর্ষণ মামলার মূল আসামি রতনকে (১৮) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ঢাকার সাভার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

র‍্যাব-১০ কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, কামরাঙ্গীরচরে শিশু ধর্ষণের মূল আসামি রতন সাভার ব্যাংক কলোনি এলাকায় পালিয়ে ছিলেন। সেখান থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রেমে ব্যর্থ হয়ে প্রতিশোধ নিতে এ কাজ করেছেন বলে রতন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‍্যাবকে জানিয়েছেন। রতন কামরাঙ্গীরচর এলাকায় ব্যাটারি রিকশা চালান। গ্রেপ্তারের পর তাঁকে কামরাঙ্গীরচর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে কামরাঙ্গীরচর এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনে শিশুটিকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় রতন, হাসান, সিফাত, সবুজ, রনি এবং ওই কিশোরীর এক বান্ধবীসহ (অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তার নাম প্রকাশ করা হলো না) ছয়জনকে আসামি করে শিশুটির মা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। এর পর কামরাঙ্গীরচরসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে হাসান, সিফাত, সবুজ, রনি এবং ওই কিশোরীর বান্ধবীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান বলেন, কামরাঙ্গীরচরের পূর্ব রসুলপুর এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনের দ্বিতীয় তলায় মেয়েটিকে তার এক বান্ধবী সহায়তায় কৌশলে নিয়ে যায় পাঁচজন। সেখানে নেওয়ার পর তাকে ধর্ষণ করা হয়। পরে কিশোরীকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে তার পরিবারের সদস্যরা থানায় নিয়ে আসেন। রাতেই তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *